ফর্সা হবার জন্য স্টেরয়েড ক্রিম : সাবধানতাই ত্বকের সুরক্ষা - Skin Fairness & Steroid Cream : Be Careful and Save Your Skin

skin-fairness-steroid-cream-be-careful

ফর্সা হবার জন্য স্টেরয়েড ক্রিম : সাবধানতাই ত্বকের সুরক্ষা - Skin Fairness & Steroid Cream : Be Careful and Save Your Skin

আজ একটি মজার কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে। বিশেষ করে দ্রুত ত্বকের রং পরিবর্তন বা ফর্সা হবার বিষয়ে যারা আগ্রহী তাদের জন্য উপকারী একটি পোস্ট।

দেশের বিজ্ঞাপন গুলোতে তুলে ধরা হয় চাকরি বা বিয়ের ভাগ্য খুলছে না ত্বকের কালো রঙের কারণে। চটজলদি সমাধান তাই রং ফর্সা করার ক্রিম। বহুল প্রচারিত এইসব ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপন আদতে ‘বর্ণবৈষম্যমূলক’।চর্মরোগ বা ত্বক বিশেষজ্ঞেরা এটাই মানছেন যে, বিনা প্রেসক্রিপশনে যেমন তেমন ভাবে স্টেরয়েড মেশানো রং ফর্সার লেভেল মোড়ানো বিপজ্জনক কিছু ক্রিম মুখে লাগিয়েই ত্বকের জটিল ও দুরারোগ্য কিছু রোগ ডেকে আনছেন বিভিন্ন বয়সের মানুষ।

ভাল থাকুন ডট কম  (ValoThakun.Com) এর আজকের লেখা  ফর্সা হবার জন্য স্টেরয়েড ক্রিম : সাবধানতাই ত্বকের সুরক্ষা - Skin Fairness & Steroid Cream : Be Careful and Save Your Skin  বিষয়টি নিয়ে 

স্টেরয়েড মেশানো বিপজ্জনক ক্রিম মুখে মেখে ত্বকের যেসব জটিলতা হতে পারে - Side effects of steroid cream

  • মুখে দগদগে পোড়া দাগ
  • হরমোনের প্রভাবে মেয়েদের দাড়ি-গোঁফ উঠা
  • রোদে বেরোলেই মুখে জ্বালাপোড়া করা
  • মুখের এমন অবস্থার জন্য নামে হতাশা ও  ক্ষুণ্ণ হয় মানসিক স্বাস্থ্য

স্টেরয়েড ক্রিম ও বর্তমান প্রেক্ষাপট - Use of steroid fairness cream: Current situation

ইদানীং বিভিন্ন বিউটি ক্লিনিকের পরামর্শেও ফর্সা হতে অনেকে মুখে স্টেরয়েড ক্রিম মাখছেন। ত্বক বিশেষজ্ঞদের মতে এখন নিজের ত্বকের প্রতি তরুণরা যথেচ্ছা খামখেয়ালি হয় পদে পদেই।  মহিলা বা পুরুষ সবাই এখন যেন অতি-সচেতন।

মুখের স্কিনে ব্রণ, মেছতার কালচে ছোপ, দাদ, খুসকির মতো খোসা ওঠার মত সমস্যায় অনেকেই ত্বক বিশেষজ্ঞ বা চিকিৎসকের মতামত ছাড়াই নিজে নিজে স্টেরয়েড মেশানো ক্রিমের শরণাপন্ন হচ্ছেন। গ্রামের পল্লী চিকিৎসক, আয়ুর্বেদ, হোমিওপ্যাথির চিকিৎসক, ঔষধের দোকানী বা বিউটিশিয়ানদের কথাতেও অনেকে মুখে স্টেরয়েড মেশানো ক্রিম মাখছেন। এতে কিছু ক্ষেত্রে সাময়িক সফলতা আসতে পারে। তবে তখন ত্বক স্টেরয়েডে আসক্ত হয়ে যায়। ক্রিম ব্যবহার বন্ধ করলে ত্বকের সমস্যা আরও ব্যাপক ভাবে দেখা দেয়। অনেক সময় ত্বক বিশেষজ্ঞরা শ্বেতি রোগ বা এগজিমায় স্টেরয়েড যুক্ত ক্রিম ব্যবহার করেন। তবে তা মুখের চামড়ায় মাখা ঠিক না, আর একান্তই মাখতে হলে অবশ্যই চিকিৎসকের নির্দেশনা সঠিক ভাবে পালন করতে হবে।

কিছুদিন আগে পাশের দেশ ভারতের ত্বকবিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সর্বভারতীয় সংস্থা (আইএডিভিএল)-র সমীক্ষাতেই সমস্যাটা স্পষ্ট উঠে আসে। ভারতের প্রশিদ্ধ ১২টি বড় শহরে সরকারি ও বেসরকারি চিকিৎসাকেন্দ্রের বহি:বিভাগে চালানো এ রিসার্চে দেখা যায়, মুখে ত্বকের নানা সমস্যায় ভুগছেন, এমন রোগীদের ১৫ শতাংশই নিজের মতো স্টেরয়েড যুক্ত ক্রিম মাখছিলেন। এই ভুক্তভোগীদের ৩৬ শতাংশই আবার ২১-৩০ বছরের তরুণ-তরুণী।

ValoThakun.Com বা (ভাল থাকুন ডট কম) এর আজকের আপনাদের জন্য ফিয়েচার্ড লেখা  - ফর্সা হবার জন্য স্টেরয়েড ক্রিম : সাবধানতাই ত্বকের সুরক্ষা - Skin Fairness & Steroid Cream : Be Careful and Save Your Skin বিষয়ে

স্টেরয়েড ক্রিম ব্যবহার রোধে আমাদের করনীয় - What we should do about steroid cream

কমান্বয়ে বাড়ছে স্টেরয়েড যুক্ত ক্রিমের প্রসার। বিউটি ক্লিনিক বা পার্লার, গ্রামের পল্লী চিকিৎসক, ওষুধ বিক্রেতা-সহ সবার মাঝে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে স্টেরয়েড ক্রিমের অপব্যবহার নিয়ে জনসচেতনতা না তৈরী করলে অচিরেই এটি একটি বড় স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পরিনত হবে। আমাদের নিজেদের যেমন সচেতন হতে হবে, তেমনি সরকার ও রেগুলেটরি অথরিটি - যেমন ডাইরেক্টরেট জেনারেল অব্ ড্রাগ এডমিনিস্ট্রেশন-কে নিতে হবে যত্রতত্র স্টেরয়েড ব্যবহারের বিপক্ষে শক্ত পদক্ষেপ।

আসুন সচেতন হই। চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ছাড়া কখনই স্টেরয়েড জাতীয় ক্রিম ব্যবহার করা উচিৎ না। জনসচেতনতা তৈরী না হলে কখনই স্টেরয়েড ক্রিমের লং টার্ম ক্ষতিকর থাবা থেকে নিজের ত্বককে রক্ষা করা সম্ভব না।

-------------------------

আরো পড়ুন-

ভিটামিন সি ও আপনার স্বাস্থ্য - Vitamin C and Your Health

অটিজম (Autism): What we should know?

------------------------

Dr. Hasan Ebna Amin 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

2 মন্তব্যসমূহ

  1. Pretty good post. I just stumbled upon your blog and wanted to say that I have really enjoyed reading your blog posts. Any way I'll be subscribing to your feed and I hope you post again soon. Big thanks for the useful info. Answer Pup

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. Thanks for the comment and for subscribing to the blog. It will encourage me to write more good articles. :-)

      মুছুন

কোন পরামর্শ বা মতামত থাকলে জানান। :-)