শীতে ত্বকের সুরক্ষায় করনীয়

Old Age Nutrition

শীতে ত্বকের সুরক্ষায় করনীয়

ভোর বেলার ঘন কুয়াশা আর সন্ধ্যার পর হিমেল বাতাস জানান দিয়ে যাচ্ছে শীতের প্রচন্ড তীব্রতা। আবহাওয়া শুষ্ক থেকে শুষ্কতর হয়ে উঠছে দিনদিন। সেই সাথে আমাদের ত্বকও হয়ে পড়ছে নির্জীব ও মলিন। শীতের রুক্ষ ও শুষ্ক বাতাস কেড়ে নেয় আমাদের ত্বকের কোমলতা ও ময়েশ্চার। তাই শীতের প্রথম থেকেই সবার ত্বকের চাই বিশেষ যত্ন।

শীতের শুষ্কতায় ত্বকের সুরক্ষায় করনীয়

নিয়মিত গোসল করা-
শীত কালে অনেকেরই গোসল অনিয়মিত হয়ে যায়। স্বাভাবিক ও সুস্থ ত্বক ধরে রাখাতে জন্য অবশ্যই প্রতিদিন গোসল করতে হবে। গোসলের জন্য মৃদু গরম পানি ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু গোসলে কিংবা হাত-মুখ ধোয়ার সময় অতিরিক্ত গরম পানি ব্যবহার করলে ত্বক আরো বেশি শুষ্ক হয়ে যায়। এমনকি কুসুম গরম পানি দিয়েও ১০ মিনিটের বেশি সময় ধরে গোসল করা ত্বকের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

পরিচ্ছন্নতা
শীত কালে আমাদের কেন যেন ত্বক পরিষ্কার করতে শুরু হয় আলসেমি ও নানান বাহানা। ঠান্ডার জন্য হাতমুখও ঠিকভাবে নিয়মিত ধোয়া হয় না। ফলে মুখে ব্রণের
উপদ্রব প্রায় সবারই বেড়ে যায়। এছাড়া জমে থাকা মরা চামড়ার কারণে ত্বক রুক্ষ হয় ও উজ্জ্বলতা হারায়। তাই শীতকালেও প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ত্বক ভালো ভাবে পরিষ্কার করবেন এবং মাঝে মাঝে স্ক্রাবিং করবেন যেন ত্বকের মরা চামড়া পরিষ্কার হয়ে ত্বক কোমল ও মসৃণ হয়ে উঠে।

শীতের রোদ
অনেকেই ভাবেন শীতের রোদ তো ক্ষতিকর নয়! রোদ পোহানোর নাম করে অনেকক্ষণ রোদে থাকলে ত্বকের ক্ষতি হয়। সূর্যের ক্ষতিকর অতি বেগুনী রশ্মি ত্বকের অনেক ক্ষতি করে এবং ত্বককে রুক্ষ ও কালো করে দেয়। তাই কেউ যদি বাধ্য হয়ে বেশিক্ষণ থাকতে হয় তবে রোদ থেকে রক্ষা পেতে শীতেও ব্যবহার করুন সানস্ক্রিন ও ছাতা। রোদে বাইরে বের হলে চোখে ব্যবহার করুন সানগ্লাস।

পানি পান
শীত এলে আমরা সাধারণত পানি খাওয়া কমিয়ে দিয়ে থাকি। কিন্তু শীতের শুষ্কতায় ত্বকের স্বাভাবিক আদ্রর্তা নষ্ট হয়ে রুক্ষ হয়ে ওঠে। তাই শীতকালে পানি পানের পরিমাণ
বরং আরও বাড়ানো উচিৎ।

সবজী খাওয়া
শীত কালে ত্বককে সুন্দর, মসৃণ ও উজ্জ্বল রাখতে হলে প্রচুর পরিমানে শাক সবজি ও ফলের রস খাওয়া উচিৎ।

শীতের ফেস প্যাক
শীতের রুক্ষতায় ফেসপ্যাকেও কিছুটা পরিবর্তন আনা প্রয়োজন। গরম কালের ফেসপ্যাক গুলো ত্বককে আরো শুষ্ক করে ফেলে। তাই ফেসপ্যাকে কিছুটা গোলাপ জল কিংবা পানির বদলে দুধ, মধু কিংবা অলিভ ওয়েল ব্যবহার করতে পারেন। তাহলে আপনার ত্বক থাকবে সুন্দর, মসৃন ও উজ্জ্বল।

ময়েশ্চারাইজার
শীত কালে ত্বকের সুরক্ষার জন্য ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা অত্যন্ত জরুরী। ভাল কোম্পানির ক্রিম, লোশন ইত্যাদিতো ব্যবহার করতেই পারেন, সেই সাথে ব্যবহার করতে পারেন প্রতিদিন কিছুটা গ্লিসারিন। সম পরিমান গ্লিসারিন ও গোলাপ জল একসাথে মিশিয়ে ব্যবহার করা যায় শীত কালের ময়েশ্চারাইজার হিসাবে। চাইলে এতে কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল কিংবা আপনার পছন্দের কোনো সৌরভ মেশাতে পারেন।

---------------------

আরো পড়ুন-

Safety of Tea in Pregnancy- গর্ভাবস্থায় চা পান নিরাপদ কিনা

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ